Digital marketing

এফিলিয়েট মার্কেটিং কি? affiliate marketing করে টাকা আয় করুন $2,000 easy tips & tricks

এফিলিয়েট মার্কেটিং কি? What is affiliate marketing

আপনাকে স্বাগতম আমাদের লার্ন্নেস.কম থেকে । আজকে আমরা শিখব এফিলিয়েট মার্কেটিং কি অর্থাৎ  কিভাবে এফিলিয়েট মার্কেটিং শিখবো এবং কিভাবে এফেলিয়েট মার্কেটিং এ কাজ করবো এবং কোথায় এফেলিয়েট মার্কেটিং এ কাজ করবো ? এবং এফেলিয়েট মার্কেটিং করে অনেক অর্থ কিভাবে আয় করবো ? এবং কোন কোন ওয়েব সাইটে এফেলিয়েট একাউন্ট করলে বেশি আয় করা জায় ? এফিলিয়েট মার্কেটিং দ্বারা কত টাকা আয় করা যাবে ? । এ সব কিছুই আজকের আর্টিকেলে আমরা শিখবো । অনলাইনে আয় করার সবচেয়ে লাভজনক পদ্ধতিগুলোর মাঝে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং অন্যতম। অনেকে লাখ লাখ টাকা উপার্জন করছেন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং ( Affiliating marketing ) এর মাধ্যমে।  আমাদের এফিলিয়েট মার্কেটিং এর এ আর্টিকেল গূলো যদি মনোযোগ সহকারে পরেন তাহলে আপনাকে আর কোথাও এফেলিয়েট মার্কেটিং এর ফ্রিমিয়াম কোর্স গুলো করে অর্থ খরচ করতে হবেনা আপনি সকল খুটিনাটি আমাদের এখান থেকে শিখতে পারবেন ।

যারা এফেলিয়েট মার্কেটিং জগতে নতুন এবং যারা নতুন করে এ প্রথম এফেলিয়েট মার্কেটিং শিখার জন্য আমাদের আজকের এই আর্টিকেল পরতে এসেছেন তাদের প্রথমেই জানতে হবে এফেলিয়েট মার্কেটিং কি ?

প্রথমেই বলে রাখি আপনাদের কোন প্রশ্ন থাকলে এবং কোন কিছু জানার থাকলে সরাসরি কোন সংকোচ না করে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন মেসেজ করে  অথবা কন্টাক পেজে এবং কমেন্টের মাধ্যমে । আমরা যথা সাধ্য চেস্টা কোরবো আপনাদের সাহার্য্য করার । এবার মুল বিষয় এ আসি ।

আজকে আমরা এই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং টিউটোরিয়াল থেকে আমরা অ্যাফিলিয়েট মার্কেটার ( Affiliate Marketer ) এবং Affiliate মার্কেটিং সম্পর্কে সম্পূর্ণ ধারণা পাবো

এফিলিয়েট মার্কেটিং কি What is affiliate marketing

Affiliate marketing হচ্ছে এমন একটি উপায় বা মাধ্যম এটির দ্বারা আমরা যেকোনো অনলাইন কোম্পানির ডিজিটাল প্রোডাক্ট (Digital product), অনলাইন স্টোরের ফিজিক্যাল প্রোডাক্ট (physical product) বা অনলাইন কিনা যায় এমন যেকোনো জিনিস, আপনার নিজের ওয়েবসাইট, ব্লগ, ইউটিউবের চ্যানেলেন বা সোশ্যাল মিডিয়া পেজ “এফিলিয়েট লিংক এর মাধ্যমে” প্রোমোট (promote) করতে পারি এক দিকে যেমন তাদের প্রোডাক্ট এর সেল বারছে তার সাথে আপনি তাদের মার্কেটিং টা বারিয়ে আয় করছেন এতে উভয় ই উপক্রিত হচ্ছেন

এফিলিয়েট লিংক এর সেই প্রোমোট করা জিনিসটি যখন আপনার দেয়া লিংকের মাধ্যমে গিয়ে লোকেরা কিনবেন বা প্রোমোট করা লিংকের মাধ্যমে PRODUCT এর official ওয়েবসাইটে গিয়ে অন্য কোনো product কিনবেন, তখন আপনাকে সেই প্রোডাক্টটি বিক্রি করানোর জন্য কিছু commission টাকা দেয়া হয়।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কি? আমি যদি সহজেই বুঝাই তাহলে ধরুন আপনার কোন অনলাইন সফিং ওয়েবসাইট আছে সেখানে আপনার অনেক প্রোডাক্ট আছে বিক্রয় করার জন্য আপনি চান আপনার প্রোডাক্ট গুলো অধিক পরিমানে কিক্রয় বারুক, আমি আপনার প্রোডাক্ট বিক্রয় বারানোর জন্য এবং আমার আয় এর জন্য বিভিন্ন উপায়ে প্রমোট করে কয়েকটা বিক্রি করলাম। এজন্য  আপনি আমাকে কমিশন দিলেন। এটাই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং। এক কথায় অন্যের পণ্য বিক্রি করে তাদের যেরকম লাভ তেমনি আপনারো কিছু টাকা আয় হলো।

উদাহরণ স্বরূপে,

ধরুন আমি বাংলাদেশের একটি অনলাইন সপ থেকে একটি বাইক কিনব আমি কোন বাইক কিনলে সবচাইতে ভালো হবে সেটি অনেকে খুজা খুজি করে আমি একটি বাইক ক্রয় করি তার পর সেই বাইকটি সম্পর্কে আমি আমার ওয়েব সাইটে কিছু লেখা লেখি করে পাবলিস্ট করি সেখান থেকে আমার যাতে কিছু আয় হয় সে জন্য আমি ওই অনলাইন সফ এ আমি একটি অ্যাফিলিয়েট একাউন্ট তৈরি করি আমি যেই বাইকটি কিনেছিলাম সেটির একটি অ্যাফিলিয়েট লিঙ্ক আমার লেখা আর্টিকেলে লিঙ্ক দিয়ে দেই যখন কনো ট্রাফিক আমার লেখাটি পরে এই বাইকটি কিনতে আগ্রহি হয় সে এই লিঙ্ক এ গিয়ে যদি এই বাইক অথবা অন্য যে কোন কিছু ক্রয় করে তাহলে সেখান থেকে অনলাইন প্রতিষ্ঠান আপনাকে কিছু কমিশন দিবে । এক দিকে যেমন প্রতিষ্ঠানটির বিক্রয় বারলো অন্যদিকে তাদের মার্কেটিংটা আপনে করে আপনিও কিছু টাকা আয় করলেন । এভাবেই মুলত অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করে ।

এফিলিইয়েট মার্কেটিং কিভাবে শুরু করবেন ? (How to start affiliate marketing ?)

১. এফিলিয়াতে মার্কেটিং শুরু করার আগে আপনার কিছু অভিজ্ঞতা অর্জনের প্রয়োজন হবে যেমন আপনার একটি ইউটিব চেনেল , সোশ্যাল মিডিয়া পেজ , ওয়েবসাইট , ব্লগ থাকতে হবে । সে ইউটিউব চেনেল , সোশ্যাল মিডিয়া পেজ, ওয়েবসাইট, ব্লগ এ অনেক ট্রাফিক, ভিসিটর বা লাইক থাকতে হবে কারণ, যেকোনো প্রোডাক্টের (product) এর মার্কেটিং করার জন্য সবচে জরুরি অডিয়েন্স (audience) যাদের কাছে আপনি প্রোডাক্ট শেয়ার বা মার্কেটিংবা বিক্রয় করবেন  । এবং, যেকোনো প্রোডাক্ট অনলাইনে মার্কেটিং করার এই ৪ টি পদ্যতিতে আপনি ভালো এফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারবেন এতে ভালো আয় করতে পারবেন ।

২. আপনার যদি প্রথম ধাপ পূরন হয়ে যায় অর্থাত অপনার যদি ইউটিউব চেনেল , সোস্যাল মিডিয়া পেজ, ওয়েবসাইট, ব্লগ এর মধ্য যে কোন একটিও থাকে তা হলে আপনি এফেলিয়েট মার্কেটিং শুরু করতে পারেন এবার আপনার জন্য প্রয়োজন ভালো এফেলিয়েট সাইট খুজা যে গুলোতে আপনি ভালো কমিশন পাবেন আপনার আয় বারবে । বাংলাদেও অনেক অনলাইন সফ রয়েছে যেগুলোতে এফেলিয়েট একাউন্ট তোইরি করা যায় । আপনে যে সাইট বেছে নিতে পারেন যেমনঃ

. হোস্টিক সাইট

. অনলাইন সফ

এ সাইট গুলোতে গিয়ে একটি এফেলিয়েট একাউন্ট তৈরি করুন । এবার আপনার affiliate program এ জইন হওয়ার কাজ শেষ ।

৩. আপনার দ্বিতিয় ধাপ শেষ করার পর affiliate network বা affiliate program জয়েন করার পর । এবার আপনার কাজ ভালো মানের প্রোডাক্ট খুজে আপনি এফিলিয়েট লিঙ্ক তৈরি করে আপনার অডিয়েন্স এর কাছে শেয়ার করা

৪. এবার আপনার ইউটিউব চেনেল , সোস্যাল মিডিয়া পেজ অথবা ওয়েবসাইট ব্লগ এ আপনার এফেলিয়েট লিঙ্কটি শেয়ার করুন অথাবা যে কোন মাধ্যমে আপনি সেই লিঙ্ক শেয়ার করতে পারেন এই লিঙ্ক এ ক্লিক করে কেও কোন প্রোডাক্ট কিনলে আপনি সেই প্রোডাক্ট এর বিক্রয় বাবদ কিছু কমিশন পাবেন । তাহলে আপনি affiliate network টির তরফ থেকে কিছু টাকা পাবেন commission হিসেবে যা আপনার আয় করা অর্থ।

এফিলিয়েট মার্কেটিং দ্বারা কত টাকা আয় করা যাবে ?

এফিলিয়েট মার্কেটিং করে কত টাকা আয় করা যায় এটা সঠিক ভাবে বলা যায় না, কারন এটা নিরভর করছে সম্মপুর্ন আপনার উপর কারন অনেকে এফিলিয়েট মার্কেটিং করে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করছে আবার কেও হাজার টাকা আয় করছে এটা ইচ্ছা সক্তি আর আপনার দক্ষ্যতা এবং পরিস্রম ও কাজের উপর নির্ভর করে ।

ধরুন আপনি একটি হোস্টিং পেকেজ এর এফেলিয়েট লিংক শেয়ার করেছেন আপনার ব্লগ ওয়েবসাইটে । সেই হোস্টিং পেকেজ এর বাতসরিক মুল্য ৮,০০০ টাকা এটা থেকে আপনাকে বিক্রয় করে দিলে কমিশন দিবে ১৫% তাহলে এ লিঙ্ক থেকে আপনি তাদের হোস্টিং পেকেজটি সেল করেছেন ১৫ টি এবার আপনার আয় কত?

৮০০০*১৫

১,২০,০০০*১৫/১০০ = ১৮,০০০ টাকা

এবার তাহলে আপনি এক মাসে আয় করলেন ১৮,০০০ টাকা ।

এফেলিয়েট মার্কেটিং এর আয় নির্ভর করে আপনি যেই প্রোডাক্ট সেল করছেন তার মার্কেট ভেলু কত এবং আপনি যেই প্রোডাক্ট সেল করছেন তার কমিশ কত ? কত দামি জিনিস বিক্রয় করছেন ? ও কতটি এফেলিয়েট লিঙ্ক এ কত প্রোডাক্ট বিক্রয় করেছেন ।

এ সব কিছুর উপর নির্ভর করবে আপনি কত টাকা ইনকাম করতে পারবেন । একবার এই অনলাইন ব্যবসা ধরে ফেল্লে আপনাকে আর পিছনে তাকাতে হবেনা আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না আপনি কত টাকা ইনকাম করতে পারবেন ।

কিছু লাভজনক এবং বিখ্যাত এফিলিয়েট প্রোগ্রাম (affiliate program)

বর্তমান বিশ্বে সব ছোট্ট বড়ো অনলাইন স্টোর বা কোম্পানি affiliate program ব্যবহার করেন এতে তাদের মার্কেটিং এর কজ চালিয়ে যান। কিন্তু, তাদের মধ্যে কয়েকটি এমন এফিলিয়েট নেটওয়ার্ক রয়েছে যেগুলি বেশি কমিশন ইনকাম দেয়ার জন্য প্রস্তুত সেগুলো আমাদের খুজে বের করতে হবে। তেমন কিছু ওয়েবসাইট এর তালিকা আমি নিছে দিলাম যেগুলোতে বেশি কমিশন পাবেন

এফিলিয়েট মার্কেটিং কি

Amazon affiliate program – এই অনলাইন সপ খুব বিক্ষাত ভারতের e-commerce ব্যবসাতে আমাজন সবচেয়ে বিক্ষাত এই অনলাইন শপিং স্টোরেও আপনি affiliate হিসেবে রেজিস্টার হোয়ে বিভিন্ন রকমের product এফিলিয়েট লিংকের মাধ্যমে ভালো কমিশনে বিক্রি করতে পারবেন যা থেকে আপনার আয় অনেক বেশি হবে।

Flipkart affiliate program –এটিও একটি ভালো সাইট এইটা ইন্ডিয়া অনেক নাম করা এবং জনপ্রিয় একটি online shopping website . এখানে ফ্রীতেই এফিলিয়েট হিসেবে আপনি রেজিস্টার কোরে এফিলিয়েট লিঙ্ক তৈরি করে তা শেয়ার করে আপনি বিভিন্ন রকমের দামি কমদামি জিনিস ভালো commission এ বিক্রি করতে পারবেন।

Hostgator affiliate network –অনলাইনে অনেকেই হোস্টিং এবং ডোমেইন কিনতে আগ্রহি ও ভালো সাইট খুজছে hostgator ডোমেইন এবং হোস্টিং এর মার্কেটে অনেক নাম করা কোম্পানি। এবং, আপনি যদি ডোমেইন বা হোস্টিং এর এফিলিয়েট মার্কেটিং করতে চান, তাহলে hostgator আপনাকে ভালো কমিশন দিতে পারবে। এখানে আপনি একটি বিক্রিতেই প্রায় ৩০০০ টাকা অব্দি আয় করতে পারবেন।

Go daddy  (domain & hosting) – এতি ডোমেইন হোস্টিং এর জন্য বিস্যস্ত এবং জনপ্রিয় সাইট আপনার ব্লগ blogging এবং hosting এর ওপরে, তাহলে Go Daddy তে একজন এফিলিয়েট এ সাইন আপ করে এফেলিয়েট লিঙ্ক তৈরি করুন এবং অনেক হাই কমিশনে ডোমেইন এবং হোস্টিং বিক্রি করুন। Go daddy ডোমেইন এবং হোস্টিং কেনার অনেক বিখ্যাত অনলাইন কোম্পানি।

Daraz affiliate program – আপনারা হয়তো Daraz অনলাইন ওয়েবসাইটের কথা অবশই জানেন। Daraz একটি অনলাইন শপিং সাইট যে সব জায়গায় নিজের প্রোডাক্ট ডেলিভার করেন। এবং, আপনি Daraz এফিলিয়েট প্রোগ্রামের মাধ্যমে আপনি তার যেকোনো অনলাইন product মার্কেটিং কোরে ভালো commission আয় করতে পারবেন।

বিশ্বে অনেক বড় বড় এবং লোকাল ওয়েবসাইট রয়েছেন যারা আপনাকে তাদের প্রোডাক্ট অনলাইন বিক্রি করানোর জন্য ভালো কমিশন দিতে প্রস্তুত। আপনি Google এ গিয়ে নিজের দেশের affiliate program এর বিষয়ে সার্চ কোরে তাদের affiliate program এ join করতে পারেন।

আজকে তাহলে আমরা এফেলিয়েট মার্কেটিং সিখে গেলাম তার পরে আরটিকেলে আপরা শিখাব কিভাবে এফেলিয়েট মার্কেটিং এর লিঙ্ক শেয়ার করবেন প্রোডাক্ট বিক্রয় করবেন সব টিপস দিয়ে দিব ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

ads block detected

please adsblock softwer off